গোয়াইনঘাটে সমবায় দিবস পালিত,‘বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ভিত্তিক উন্নয়ন

প্রকাশিত: ৭:১১ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৭, ২০২০

গোয়াইনঘাটে সমবায় দিবস পালিত,‘বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ভিত্তিক উন্নয়ন

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধিঃ
উপজেলার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে জনসম্পদে রুপান্তর করতে সমবায়ের বিকল্প অনন্য বলে মন্তব্য করেছেন গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুস সাকিব।
প্রতিবছর নবেম্বর মাসের প্রথম শনিবার দেশে বর্ণাঢ্যভাবে পালিত হয় জাতীয় সমবায় দিবস। সে হিসেবে ৭ নবেম্বর ২০২০ হলো ৪৯তম জাতীয় সমবায় দিবস। দিবসের এ বছরের প্রতিপাদ্য : ‘বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ভিত্তিক উন্নয়ন।’
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলার জনমানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণ ও অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য আজীবন লড়াই সংগ্রাম করে গেছেন। এ প্রেক্ষিতে তাঁর ভাবনা ও সমবায়ের কর্মকাণ্ড ছিল একই সূত্রে গাঁথা। গণমানুষের চাহিদা পূরণে সমবায় পদ্ধতিকে তিনি সর্বাধিক গুরুত্বারোপ করেছিলেন। সর্বদাই বাঙালী জাতির উন্নত জীবন প্রতিষ্ঠায় ছিলেন সোচ্চার। তাঁর আদর্শিক চিন্তা-ভাবনা সমবায় পদ্ধতিকে সার্থক করে তুলতেও সহায়ক ছিল। জাতীয় অর্থনীতির দ্বিতীয় খাত হিসেবে সমবায় মালিকানাকে স্বীকৃতি দান বঙ্গবন্ধুর অনন্য অবদান।

দেশের জাতীয় অর্থনীতিতে সমবায় কৃষি, মৎস্য, পশুপালন, পোশাক, দুগ্ধ উৎপাদন, আবাসন, ক্ষুদ্রঋণ ও সঞ্চয়, কুটির-চামড়াজাত-মৃৎশিল্প ইত্যাদি খাতের বিকাশ, কর্মসংস্থান সৃষ্টি, নারীর ক্ষমতায়নের উন্নয়নসহ, ক্ষুদ্র নৃ-তাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীকে স্বাবলম্বী করতে বিশাল অবদান রাখছে। সমবায় দিবস বাংলাদেশ সরকার ঘোষিত একটি জাতীয় দিবস। সমবায় সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করা এবং সমবায় আন্দোলনে গতিশীলতা আনয়নের জন্য প্রতিবছর নভেম্বর মাসের ১ম শনিবার একযোগে দিবসটি সারাদেশ ব্যাপী উদযাপন করা হয়। সমবায় দিবসে দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে জনসম্পদে রুপান্তর করতে হলে সমবায়ের বিকল্প অনন্য। এজন্য প্রত্যেক ব্যাক্তিকে সমবায়ী হতে হবে। ৪৯তম জাতীয় সমবায় দিবস উদযাপন উপলক্ষে শনিবার সকাল ১১টায় জাতীয় সংগীত’র মাধ্যমে পতাকা উত্তোলন শেষে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কতগুলো বলেছেন।
গোয়াইনঘাট উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা সমবায় কার্যালয়ের যৌথ উদ্যোগে ৪৯তম জাতীয় সমবায় দিবসে অফিস সহায়ক মোঃ জিল্লুর রহমানের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা আবুল কাশেম ভূঁইয়া, বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাখেন গোয়াইনঘাট উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক, ৩নং পূর্ব জাফলং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ লুৎফুর রহমান লেবু, গোয়াইনঘাট কেন্দ্রীয় সমিতির সভাপতি লোকমান উদ্দিন, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা পজিপ সুশান্ত কুমার দাস, সালুটিকর বাজার ব্যাবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ, পোল্ট্রি খামার কল্যাণ সমিতির সভাপতি মুহিবুল করিম, বৃহত্তর মামার বাজার ব্যাবসায়ী সমিতির সভাপতি মাওলানা নাজিম উদ্দীন, আশার আলো কৃষি’র সম্পাদক মোঃ ইকবাল আহমদ , নয়াখেল আশ্রয়ন প্রকল্পের ফেইজ-২ এর বহুমুখী সমবায় সমিতির সভাপতি জয়নাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ নজরুল ইসলাম, অর্থ সম্পাদক জুয়েল আহমদ।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ