সুনামগঞ্জে এক কৃষকের ডোবার তিন লাখ টাকার মাছ লুটের ঘটনায় দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে মানববন্ধনে হামলা

প্রকাশিত: ১১:২৬ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩, ২০২০

সুনামগঞ্জে এক কৃষকের ডোবার তিন লাখ টাকার মাছ লুটের ঘটনায় দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে মানববন্ধনে হামলা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:
সুনামগঞ্জের খামতিয়র গ্রামে আনোয়ার মিয়ার নেতৃত্বে একটি চাদাঁবাজচক্র দাড়াঁলো অস্ত্র দেখিয়ে আজ্ঞব আলী নামে এক কৃষকের ডোবা থেকে ৩লাখ টাকার মাছ লুটের ঘটনার প্রতিবাদে দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে মানববন্ধন চলাকালেও হামলা চালায় এই চক্রটি। ।
বৃহস্পতিবার দুপুরে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক পরিবার ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে খামতিয়র সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বক্তব্য রাখেন ডোবার মালিক মো. আজ্ঞব আলী,তার কন্যা নাজমা বেগম,মো. সুলতান মিয়া, আব্দুল কাইয়ূম,এরশাদ আলী, আব্দুল খালিক ও আঙ্গুরা বেগম প্রমুখ।
বক্তারা বলেন,খামতিয়র গ্রামের অসহায় নিরীহ কৃষক আজ্ঞব আলী নিজে তার বাড়ির পাশে ৫৫৪ নং দাগের বোরো রকম ১.১৪একর জমিতে মৎস্য আহরনের জন্য মাটি কেটে একটি ডোবা দিয়েছিলেন। এই ডোবাটি তার বেচেঁ থাকার অবলম্বন হলেও একই গ্রামের আব্দুল খালিকের ছেলে সন্ত্রাসী আনোয়ার মিয়া, মৃত হাছন আলীর ছেলে নজির মিয়া(৫০),মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে আব্দুল ওয়াব(৫৫),মৃত আব্দুল খালিকের ছেলে ইকবাল হোসেন গংরা মিলে ঐ কৃষকের ডোবা থেকে প্রায় তিনলাখ টাকার মাছ লুট করে নিয়ে যায়। আজ মানববন্ধন চলাকালেও আনোয়ার মিয়ার নেতৃত্বে ১০/১২জন মিলে এই মানববন্ধনে এ হামলা চালায়।
আনোয়ার মিয়া গংদের অত্যাচার আর নির্যাতনে অতিষ্ঠ সাধারন মানুষজন। তাদের দ্রæত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জন্য সরকার ও পুলিশ প্রশাসনের নিকট জোর দাবী জানান। উল্লেখ্য আনোয়ার গংরা গত ১৮ অক্টোবর আজ্ঞব আলীর ডোবা লুটের ঘটনার পরের দিন গত ১৯ অক্টোবর খামতিয়র গ্রামের জফর আলীর ছেলে আজ্ঞব আলী নিজে বাদি হয়ে একই গ্রামের সন্ত্রাসী নামাংঙ্কিত ব্যক্তিদের নাম উল্লেখ করে সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ।
এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জসদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শহিদুর রহমান আজ কৃষক আজ্ঞব আলীর লোকজনের মানববন্ধন চলাকালে ডোবা লুটকারী আনোয়ার মিয়ার নেতৃত্বে হামলার ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানান তিনি।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ