চেক প্রতারণা মামলায় জেল হাজতে দরবস্ত বাজারের ব্যবসায়ী কুতুব আলী

প্রকাশিত: ২:২৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৪, ২০২১

চেক প্রতারণা মামলায় জেল হাজতে দরবস্ত বাজারের ব্যবসায়ী কুতুব আলী

জৈন্তাপুর প্রতিনিধি:
সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার দরবস্ত বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কুতুব আলী চেক প্রতারণা মামলায় জেল হাজতে প্রেরণ করেছে আদালত।
অভিযোগ ও মামলার তদন্ত সূত্রে জানাযায়, মামলার বাদী দরবস্ত বাজারের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী দরবস্ত ইউনিয়নের ডাইয়া গ্রামের সিদ্দেক আলীর ছেলে মোঃ বিলাল আহমদ (৩২) মাননীয় জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৬নং আমলী আদালত, সিলেটে দন্ডবিধি ৪০৬/৪২০ ধারায় দরখাস্ত মামলা দায়ের করেন যাহার নং-১৩০/২০২০। আদালত বাদীর দরখাস্তটি ২১ অক্টোবর ২০২০ইং তারিখের ৭৮৯(৫) নং স্মারকে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন জন্য অফিসার ইনচার্জ জৈন্তাপুর মডেল থানায় প্রেরণ করেন। এরই আলোকে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নির্দেশে এস.আই শফিকুল ইসলাম বাদী সহ বাদীর মানিত স্বাক্ষী এবং নিরপেক্ষ স্বাক্ষীদের মামলার ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ পূর্বক তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। তদন্তে বাদীর চেক হারিয়েছে মর্মে প্রতিয়মান হয়। এ অবস্থায় চেক দুটি দরবস্ত বাজারের ব্যবসায়ী মামলার বিবাদী কুতুব আলী প্রাপ্ত হওয়ার সংবাদ বাদী জানতে পারেন এবং কুতুব আলীর নিকট ফেরত চান। কিন্তু কুতুব আলী চেক ফেরত না দিয়ে আত্মসাৎ করিয়া ২টি চেকের মধ্যে হতে ১টি চেক যাহার নং-এসবি-২৫-২৪৩৮৮৬২ তে ৯ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা বসিয়ে ১২ অক্টোবর ২০২০ইং তারিখে পূবালী ব্যাংক লিমিটেডের দরবস্ত বাজার শাখায় জমাদেন। দরবস্ত ডাইয়া গ্রামের ইছরাখ আলীর ছেলে ব্যবসায়ী বিবাদী কুতুব আলী ২টি চেক আত্মসাৎ করিয়া বাদীর একাউন্ট নং-১৭৪৩১০১০৭৫৯৭১ হতে ৯ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা উত্তোলন করার উদ্দেশ্যে চেক নং-এসবি-২৫-২৪৩৮৮৬২ ব্যাংকে উপস্থাপন করেন। জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশ প্রকাশ্যে ও গোপন তদন্তে বিবাদী কুতুব আলীর বিরুদ্ধে পেনাল কোডের ৪০৬/৪২০ ধারার অপরাধ প্রাথমিক ভাবে সত্য বলিয়া প্রমানীত হয় মর্মে প্রতিবেদন দাখিল করে।
দরখাস্ত মামলায় মামলার বিবাদী দরবস্ত বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কুতুব আলী আমলী আদালত-৬ ২৪ জানুয়ারী রবিবার দুপুরে এ হাজির হলে আদালতের বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট মামলার বিবরণ ও পুলিশ প্রতিবেদন যাচাই করে বিবাদীকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ