গোয়াইনঘাটে পাথর খেকুদের থাবায় বিলীন হয়ে যাচ্ছে ঘর বাড়ি, থানায় অভিযোগ দায়ের

প্রকাশিত: ৬:১৪ অপরাহ্ণ, মে ২৩, ২০২১

গোয়াইনঘাটে পাথর খেকুদের থাবায় বিলীন হয়ে যাচ্ছে ঘর বাড়ি, থানায় অভিযোগ দায়ের

নিজস্ব সংবাদদাতা :– গোয়াইনঘাটের এক নং রুস্তমপুর ইউনিয়নের বগাইয়া গ্রামে পাথরখেকু ও ভূমিখেকু আবুল কাশেম গংদের থাবা ও পেলুডার বোমামেশিন সহ পরিবেশ বিনষ্টকারী দানব যন্ত্ৰ ধারা পাথর উত্তোলন করে সর্বনাশ হয়ে বাড়ি ঘর ভেংঙ্গে গর্তের সাথে মিশে একাকাকার হয়ে যাচ্ছে মর্মে গত ২১ মে শুক্রবার গোয়াইনঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন বগাইয়া গ্রামের মতিউর রহমান (৬০) পিতা মৃত খুরশিদ আলী। অভিযোগে তিনি বলেন একই গ্রামের আবুল কাশেম (৪০),আবুল হোসেন (৪৫) আবুল হাশেম (৩৫)সর্ব পিতা হাকিম আলী, সর্ব সাং বগাইয়া সহ অপরাপর লোকজন মিলে ফেলোডার বোমা মেশিন দিয়ে পাথর উত্তোলন করে গহীন গর্ত করে পরিবেশ নষ্ট করে আমার ঘর ভেংঙ্গে দেয়। ফলে আমার ঘর ধসে পড়ে পানিতে মিশে একাকার হয়ে যায়, এতে আমার প্রায় সর্বমোট ৬৯ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়। আমি আমার বসত বিটা রক্ষায় তাদেরকে বলিলে আমাকে ভয় ভীতি ও প্রানে মারার হুমকী দেয়, এতে আমি আমার পরিবার আমার ছেলে মেয়ে সহ সবাই আতংকে জীবন যাপন করছি। এমতাবস্তায় আমি গোয়াইনঘাট থানা সহ প্রশাসনের সাহায্যের আকুতি অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করেন মামলার বাদি মতিউর রহমান। এদিকে অভিযোগের পেক্ষিতে সরেজমিন গত ২২ মে শনিবার সরেজমিন পরিদর্শন করেন গোয়াইনঘাট থানার এসআই মাসুম আহমদ। জানতে চাইলে এসআই মাসুম জানান বিষয়টি স্থানীয় ভাবে সমাধানের জন্য মামলায় বর্নিত আবুল কাশেম স্থানীয় মেম্বার সহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গদের সাথে নিয়ে সামাধান করার কথা বললে এখন পর্যন্ত আমাকে জানায়নি। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তিনি মামলার বাদি সহ পরিবারে সদস্যরা আতংকের মধ্য দিন কাটাচ্ছেন বলে জানান মতিউর রহমান। এ বিষয়ে কথা বলতে চাইলে মামলায় বর্নিত আসামী আবুল কাশেম এর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও যোগাযোগ করা যায়নি।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ